বগুড়া ১২:৩৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
নোটিশ ::
"বগুড়া বুলেটিন ডটকম" এ আপনাকে স্বাগতম। বগুড়ার প্রত্যেক উপজেলায় ১জন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। ফাঁকা উপজেলাসমূহ- সদর, শাজাহানপুর, ধনুট, শেরপুর, নন্দীগ্রাম

নন্দীগ্রামে খেতের মরিচ গাছ উপড়ে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা”লাখ টাকার ক্ষতি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৩:০৪:৫৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৭ জুলাই ২০২৩
  • / 109
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

সারাদেশে লাগামহীন বেড়েছে কাঁচা মরিচের দাম এই মুহূর্তে বগুড়ার নন্দীগ্রামে রাতের আঁধারে প্রায় ১ হাজার মরিচের গাছ উপড়ে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার ৬ জুলাই রাতে নন্দীগ্রাম পৌর এলাকার নামুইট গ্রামের আব্দুল মান্নানের মরিচ গাছ উপড়ে ফেলা হয়েছে। ভুক্তভোগী কৃষক আব্দুল মান্নান জানিয়েছেন, গত ৪ বছর ধরে তিনি ওই জমিতে মরিচ চাষ করছেন। প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও গত মার্চ মাসে নিজস্ব ১০ কাঠা জমিতে মরিচ গাছের ২৩০০ চারা রোপণ করেন। বৃহস্পতিবার রাতে ১ হাজার মরিচের গাছ নষ্ট করে দুর্বৃত্তরা। প্রায় এক লাখ টাকা ক্ষতি হয়েছে বলে জানান তিনি।কৃষক আব্দুল মান্নান বলেন,এবছর গাছে মরিচ ধরেছিলো। দুর্বৃত্তরা রাতের আঁধারে তার মরিচ ধরা গাছগুলো উপড়ে ফেলেছে।। তিনি দুর্বৃত্তদের শনাক্ত করে বিচার দাবি করেছেন। থানায় লিখিত অভিযোগ দিবেন বলেও জানান তিনি। এলাকার একাধিক ব্যক্তি জানান, কৃষক আব্দুল মান্নান অনেক টাকা খরচ করে মরিচ চাষ করেছিলো। কোন অমানুষ ছাড়া এতো বড় ক্ষতি কেউ করতে পারেনা।মরিচের গাছগুলো বেশ সবল হয়ে উঠেছিলো ও মরিচও অনেক ধরেছিল। এতো সুন্দর আবাদ যারা নষ্ট করেছে তাদের উপযুক্ত বিচারের দাবি করেন তারা।নন্দীগ্রাম পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শাহিরুল ইসলাম বলেন,সে কারো কখনো ক্ষতি করেনি। অথচ রাতের আধারে দুর্বৃত্তরা তার মরিচ ধরা গাছ উপড়ে ফেলেছে ।ডাকাত স্বভাবের মানুষ ছাড়া এ কাজটি কেউ করতে পারেনা।নন্দীগ্রাম উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মো. আদনান বাবু জানান,এটা অমানবিক। পূর্বের শত্রুতার জের ধরে এই ঘটনা ঘটাতে পারে । ক্ষতিগ্রস্থ মরিচের জমি পরিদর্শন করা হবে।কৃষি বিভাগ থেকে ওই ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক কে কৃষি প্রণোদনা দিয়ে সহযোগীতা করা হবে। কৃষকদের কষ্টের অর্জিত ফসল দুর্বৃত্তরা নষ্ট করেছে তাদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

নন্দীগ্রামে খেতের মরিচ গাছ উপড়ে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা”লাখ টাকার ক্ষতি

আপডেট সময় : ০৩:০৪:৫৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৭ জুলাই ২০২৩

সারাদেশে লাগামহীন বেড়েছে কাঁচা মরিচের দাম এই মুহূর্তে বগুড়ার নন্দীগ্রামে রাতের আঁধারে প্রায় ১ হাজার মরিচের গাছ উপড়ে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার ৬ জুলাই রাতে নন্দীগ্রাম পৌর এলাকার নামুইট গ্রামের আব্দুল মান্নানের মরিচ গাছ উপড়ে ফেলা হয়েছে। ভুক্তভোগী কৃষক আব্দুল মান্নান জানিয়েছেন, গত ৪ বছর ধরে তিনি ওই জমিতে মরিচ চাষ করছেন। প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও গত মার্চ মাসে নিজস্ব ১০ কাঠা জমিতে মরিচ গাছের ২৩০০ চারা রোপণ করেন। বৃহস্পতিবার রাতে ১ হাজার মরিচের গাছ নষ্ট করে দুর্বৃত্তরা। প্রায় এক লাখ টাকা ক্ষতি হয়েছে বলে জানান তিনি।কৃষক আব্দুল মান্নান বলেন,এবছর গাছে মরিচ ধরেছিলো। দুর্বৃত্তরা রাতের আঁধারে তার মরিচ ধরা গাছগুলো উপড়ে ফেলেছে।। তিনি দুর্বৃত্তদের শনাক্ত করে বিচার দাবি করেছেন। থানায় লিখিত অভিযোগ দিবেন বলেও জানান তিনি। এলাকার একাধিক ব্যক্তি জানান, কৃষক আব্দুল মান্নান অনেক টাকা খরচ করে মরিচ চাষ করেছিলো। কোন অমানুষ ছাড়া এতো বড় ক্ষতি কেউ করতে পারেনা।মরিচের গাছগুলো বেশ সবল হয়ে উঠেছিলো ও মরিচও অনেক ধরেছিল। এতো সুন্দর আবাদ যারা নষ্ট করেছে তাদের উপযুক্ত বিচারের দাবি করেন তারা।নন্দীগ্রাম পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শাহিরুল ইসলাম বলেন,সে কারো কখনো ক্ষতি করেনি। অথচ রাতের আধারে দুর্বৃত্তরা তার মরিচ ধরা গাছ উপড়ে ফেলেছে ।ডাকাত স্বভাবের মানুষ ছাড়া এ কাজটি কেউ করতে পারেনা।নন্দীগ্রাম উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মো. আদনান বাবু জানান,এটা অমানবিক। পূর্বের শত্রুতার জের ধরে এই ঘটনা ঘটাতে পারে । ক্ষতিগ্রস্থ মরিচের জমি পরিদর্শন করা হবে।কৃষি বিভাগ থেকে ওই ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক কে কৃষি প্রণোদনা দিয়ে সহযোগীতা করা হবে। কৃষকদের কষ্টের অর্জিত ফসল দুর্বৃত্তরা নষ্ট করেছে তাদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।