বগুড়া ০৩:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম ::
Logo আন্তর্জাতিক মাতৃ ভাষা দিবসে জিআরপি থানার উপহার Logo বগুড়ার সদরের নুনগোলা উচ্চ বিদ্যালয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন Logo কাহালুর বীরকেদার ইউনিয়নে বিএনপির গণ-সংযোগ ও লিফলেট বিতরণ অনুষ্ঠিত Logo কাহালুর শেখাহার দ্বি-মূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ Logo আদমদিঘীতে সড়ক দুর্ঘটনায় এক শিশু নিহত Logo বগুড়ায় মাসিক কল্যাণ সভায় শ্রেষ্ঠ নির্বাচিত শেরপুর থানা Logo র‍্যাবের যৌথ অভিযানে আটক ৬ Logo বগুড়ায় ছুরিকাঘাতে এক যুবক নিহত Logo কাহালু প্রেসক্লাবের নতুন কমিটি গঠন সম্পর্কে সিনিয়র সহ আট সাংবাদিকের বিবৃতি প্রদান Logo কাহালুতে বিএনপির গণ-সংযোগ ও লিফলেট বিতরণ
নোটিশ ::
"বগুড়া বুলেটিন ডটকম" এ আপনাকে স্বাগতম। বগুড়ার প্রত্যেক উপজেলায় ১জন করে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে। ফাঁকা উপজেলাসমূহ- সদর, শাজাহানপুর, ধনুট, শেরপুর, নন্দীগ্রাম

বগুড়ার ধুনটে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা, আটক ৩

খালিদ বিন সাঈদ,স্টাফ রির্পোটার
  • আপডেট সময় : ০৬:৪০:২৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ মে ২০২৩
  • / 192
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় আল মায়দা আক্তার রজনী (৮) নামে এক শিশু শিক্ষার্থীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর ইট দিয়ে মাথা থেতলে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। শিক্ষার্থীর হত্যা নিশ্চিত করার পর লাশ জঙ্গলে ফেলে দেওয়া হয়। এ ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে ৩ স্কুলছাত্রকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার সকালের দিকে ধুনট থানা থেকে শিশুটির মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এরআগে শুক্রবার রাতে উপজেলার এলাঙ্গী উচ্চ বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর সংলগ্ন পরিত্যক্ত জঙ্গল থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত আল মায়েদা আক্তার রজনী এলাঙ্গী পশ্চিমপাড়া গ্রামের গাজীউর রহমান তালুকদারের মেয়ে। সে এলাঙ্গী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণীর শিক্ষার্থী ছিল।

আটককৃতদের মধ্যে দুই জনের বাড়ি উপজেলার এলাঙ্গী-থেউকান্দি গ্রামে ও আরেক জনের বাড়ি এলাঙ্গী প্রামানিকপাড়ায়। তারা তিনজন স্থানীয় উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থী। শুক্রবার শিশুটির লাশ উদ্ধারের পর ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে নিজ নিজ বাড়ি থেকে তাদের আটক করে পুলিশ। এরমধ্যে একজন পুলিশের কাছে শিশুটিকে ধর্ষণের পর হত্যার কথা স্বীকার করেছে।

শনিবার দুপুর ২ টার দিকে ধুনট থানা থেকে তাদের বগুড়া আদালতে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহত শিশুর বাবা গাজীউর রহমান তালুকদার বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করে। তবে ওই মামলায় কোন আসামীর নাম উল্লেখ নেই।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল ইসলাম বলেন, প্রাথমিক তদন্ত ও আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদে শিশুটিকে ধর্ষণের পর হত্যার বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছি। আটককৃতদের মধ্যে একজন ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। আটক অন্য ২ জনও এ ঘটনার সাথে জড়িত ছিল বলে সে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। এ ঘটনার জবানবন্ধী রেকর্ড করার জন্য আটক ৩ সহপাঠীকে বগুড়া আদালতে পাঠানো হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

বগুড়ার ধুনটে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা, আটক ৩

আপডেট সময় : ০৬:৪০:২৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ মে ২০২৩

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় আল মায়দা আক্তার রজনী (৮) নামে এক শিশু শিক্ষার্থীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর ইট দিয়ে মাথা থেতলে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। শিক্ষার্থীর হত্যা নিশ্চিত করার পর লাশ জঙ্গলে ফেলে দেওয়া হয়। এ ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে ৩ স্কুলছাত্রকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার সকালের দিকে ধুনট থানা থেকে শিশুটির মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এরআগে শুক্রবার রাতে উপজেলার এলাঙ্গী উচ্চ বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর সংলগ্ন পরিত্যক্ত জঙ্গল থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত আল মায়েদা আক্তার রজনী এলাঙ্গী পশ্চিমপাড়া গ্রামের গাজীউর রহমান তালুকদারের মেয়ে। সে এলাঙ্গী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণীর শিক্ষার্থী ছিল।

আটককৃতদের মধ্যে দুই জনের বাড়ি উপজেলার এলাঙ্গী-থেউকান্দি গ্রামে ও আরেক জনের বাড়ি এলাঙ্গী প্রামানিকপাড়ায়। তারা তিনজন স্থানীয় উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থী। শুক্রবার শিশুটির লাশ উদ্ধারের পর ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে নিজ নিজ বাড়ি থেকে তাদের আটক করে পুলিশ। এরমধ্যে একজন পুলিশের কাছে শিশুটিকে ধর্ষণের পর হত্যার কথা স্বীকার করেছে।

শনিবার দুপুর ২ টার দিকে ধুনট থানা থেকে তাদের বগুড়া আদালতে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহত শিশুর বাবা গাজীউর রহমান তালুকদার বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করে। তবে ওই মামলায় কোন আসামীর নাম উল্লেখ নেই।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল ইসলাম বলেন, প্রাথমিক তদন্ত ও আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদে শিশুটিকে ধর্ষণের পর হত্যার বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছি। আটককৃতদের মধ্যে একজন ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। আটক অন্য ২ জনও এ ঘটনার সাথে জড়িত ছিল বলে সে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। এ ঘটনার জবানবন্ধী রেকর্ড করার জন্য আটক ৩ সহপাঠীকে বগুড়া আদালতে পাঠানো হয়েছে।